বৃহস্পতিবার ২৬ মে ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
নিউইয়র্ক থেকে প্রকাশিত
পরিচয়
অর্থনীতি কমিউনিটি বাংলাদেশ লাইফস্টাইল

২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবসে ঢাকা-টরন্টো বিমান ফ্লাইট, ১১ জুন প্রথম বাণিজ্যিক ফ্লাইট

ঢাকা: বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের টরন্টো রুটে পরীক্ষামূলক ফ্লাইট আগামী ২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবসে। বাণিজ্যিক এই ফ্লাইটটি শুরু করার প্রাথমিক প্রস্তুতিও শেষ পর্যায়ে বলেজানিয়েছেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মাহবুব আলী। গত শুক্রবার (১১ মার্চ) সকালে রাজধানীর হাতিরঝিল অ্যাম্ফিথিয়েটারে ‘বিমান হাফ-ম্যারাথন’ প্রতিযোগিতার পুরষ্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন প্রতিমন্ত্রী।

তিনি আরও বলেন, আমরা ঢাকা টু নিউইয়র্ক ফ্লাইট চালুর বিষয়েও অনেক দূর অগ্রসর হয়েছি। ঢাকা থেকে জাপানের নারিতাতে ফ্লাইট চালুর বিষয়ে সব কিছু চূড়ান্ত হয়েছে।

আগামী ১১ জুন রাত পৌনে ১১টায় প্রথম বাণিজ্যিক ফ্লাইট যাত্রা করবে কানাডার টরন্টোর উদ্দেশে। বিরতিহীন প্রায় ১৫ ঘণ্টার এই ফ্লাইটটি পরদিন কানাডার সময় সকাল সোয়া ৭টায় টরন্টো পৌঁছাবে। বোয়িং ৭৮৭ দিয়ে এই ফ্লাইটটি পরিচালনা করা হবে।

পরীক্ষামূলক ফ্লাইটের জন্য ককপিট এবং কেবিন ক্রুদের ভিসাসহ অন্যান্য আনুসাঙ্গিক কাজও এখন শেষ পর্যায়ে।ঢাকা-টরন্টো-ঢাকা রুটে ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে ইকোনমি ১৪০০ মার্কিন ডলার, প্রিমিয়াম ইকোনমি ২৪০০ মার্কিন ডলার, বিজনেস ক্লাস ৪০০০ মার্কিন ডলার। আর ওয়ানওয়ের ভাড়া হবে ইকোনমি ১০০০ মার্কিন ডলার, প্রিমিয়াম ইকোনমি ১৫০০ মার্কিন ডলার, বিজনেস ক্লাস ২৫০০ মার্কিন ডলার।

পরীক্ষামূলক ফ্লাইটটির ঢাকা থেকে যাত্রার সময় রাত পৌনে ১১টা নির্ধারণ করা হলেও নিয়মিত বাণিজ্যিক ফ্লাইটের গ্রীষ্মকালীন সময়সূচির যাত্রার সময় হবে মধ্য রাতের পরে। হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের রানওয়েতে চলমান সংস্কার কাজ এ মাসেই শেষ হওয়ার কথা। এখন সংস্কার কাজের জন্য বিমানের উড্ডয়ন-অবতরণ রাত ১১টা থেকে সকাল ৮টা পর্যন্ত বন্ধ থাকে।

বিমান বেশ কয়েক বছর ধরেই কানাডার টরন্টো হয়ে উত্তর ও দক্ষিণ আমেরিকার দেশগুলোর সঙ্গে আকাশপথে যুক্ত হওয়ার চেষ্টা করে আসছিল। কিন্তু মহামারি করোনার কারণে সে পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করা যায়নি। তবে অবশেষে বাস্তবায়ন হতে যাচ্ছে সেই পরিকল্পনা।

তবে ফ্লাইট শুরু করলেই হবে না, শুরু করে চালু রাখার বিষয়টিও মাথায় রাখতে হচ্ছে রাষ্ট্রীয় পতাকাবাহী এই প্রতিষ্ঠানকে। 

এর আগে, বেসামরিক বিমান চলাচল সচিব মোকাম্মেল হোসেন বলেছিলেন, আমরা নতুন নতুন রুটে যাচ্ছি। আমরা আশা করছি অচিরেই ঢাকা- নিউইয়র্ক, মালেতে বিমান ফ্লাইট চালানো শুরু করব।

সেবার মান নিয়ে ‘আপস করা হবে না’ মন্তব্য করে  প্রতিমন্ত্রী মাহবুব আলী বলেন, ‘বাংলাদেশের পতাকা বহন করে বিশ্বের বিভিন্ন গন্তব্যে বিমান উড়ে যায়। আমরা চাই সেই বিমান মাথা উঁচু করে দাঁড়াক।’ সব প্রস্তুতি ইতোমধ্যে গুছিয়ে আনা হয়েছে বলে উল্লেখ করেন তিনি।

সোস্যাল শেয়ার :

Related posts

মন্তব্য করুন

Share
Share