বৃহস্পতিবার ২৬ মে ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
নিউইয়র্ক থেকে প্রকাশিত
পরিচয়
কমিউনিটি

সিলেট সদর অ্যাসোসিয়েশনের দুদিন ব্যাপী প্রাণবন্ত ২৫ পূর্তি উদযাপন

নিউইয়র্কে গত ২৬ ও ২৭ ডিসেম্বর সিলেট সদর অ্যাসোসিয়েশনের দুদিন ব্যাপী প্রাণবন্ত অনুষ্ঠান হয়ে গেল। সিলেট সদর থানা  অ্যাসোসিয়েশন অফ আমেরিকা এর প্রতিষ্ঠার ২৫ পূর্তি উদযাপন এবং সাথে সাথে বাংলাদেশের বিজয়ের পন্চাশ বছর পূর্তি উৎসবেরও আয়োজন ছিলো এটি।

সৌহার্দ আর ভাতৃত্ববোধকে জাগ্রত করে দূর প্রবাসেও নিজেদের মধ্যে ঐতিহ্যের বন্ধন দৃঢ় রাখার প্রত্যয় ঘোষণার মধ্যে দিয়ে সিলেট সদর থানা অ্যাসোসিয়েশন আয়োজন করেছিল দুদিনব্যাপী এই অনুষ্টানের। মহান বিজয়ের সুবর্ণজয়ন্তী ও সংগঠনের রজত জয়ন্তী উপলক্ষে সুরমা পারের লোকজনের সমাবেশ ঘটেছিল দুইদিন ব্যাপী অনুষ্টানমালায়। মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতি শ্রদ্ধা ভালোবাসা,আলোচনা,সঙ্গীত দিয়ে সাজানো হয়েছিল রজত জয়ন্তীর অনুষ্ঠান।

২৬ ডিসেম্বর রবিবার কুইন্সের ম্যাজিস্টিক হলে, শান্তি ও প্রত্যাশার বেলুন উড়িয়ে অনুষ্টানমালার  উদ্বোধন করা হয়।

 উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি বক্তব্য রাখেন প্রধান অতিথি গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী সিলেট ১ সংসদীয় আসনের মাননীয় এমপি ড: এ কে আব্দুল মোমেন, বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সিলেট সিটি কর্পোরেশনে মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী, সিলেট ৩ আসনের এমপি হাবিবুর রহমান হাবিব এবং ডা. জিয়া উদ্দিন উদ্দিন আহমেদ।

 উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সভাপতি আব্দুল মালেক খাঁন লায়েক, সাধারণ সম্পাদক দুরুদ মিয়া রোনেল, বীর মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে সিলেট সদর উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান বাবরুল হোসেন বাবুল, মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার আব্দুল মুকিত চৌধুরী , টাইম টিভির আবু তাহের ,প্রথম আলো উত্তর আমেরিকা সম্পাদক ইব্রাহীম চৌধুরী,  ডা আব্দুল বাতেন, সুফিয়ান খাঁন,নিউইয়র্ক কন্সাল অফিসের ভাইস কন্সাল আসিফ উদ্দিন আহমেদ, রানা ফেরদৌস চৌধুরী,মাহবুব রহমান, সেলিনা উদ্দিন,কাজী কয়েস, শাহিন আজমল,সরাফ সরকার,নুরুল ইসলাম,মইনুল হক চৌধুরী হেলাল, মুকুল হক, মেহরাজ ফাহমি,মিনহাজ আহমেদ চৌধুরী, রাজীব খাঁন , গৌতম দেব, জয় দেব জয়, শাহনেয়াজ কোরেশী, আব্দুল মালিক জুয়েল প্রমুখ।

মহামারির নতুন ধরন ওমিক্রনের বেড়ে উঠা সংক্রমনের কারনে স্বাস্থ্য সতর্কতা মেনে অনুষ্ঠানে উপস্থিতিত সীমিত ছিল। উদ্ভোধনী অনুষ্ঠানে বক্তারা যুক্তরাষ্ট্রে সিলেট সদর অ্যাসোসিয়েশনের কর্মকান্ডের ভূয়সী প্রশংসা করেন।

পথমেলার পথিকৃৎ এ সংগঠন প্রবাসে দেশজ ঐতিহ্য ও সংস্কৃতিকে তুলে ধরার জন্য গুরুত্বপূর্ন অবদান রেখেছে বলে তাঁরা বলেন। মহামারির বিপন্ন সময়ে নিজেদের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে সংগঠনটি প্রবাসে ও দেশে জনগণের পাশে দাঁড়িয়ে অনন্য ভূমিকা পালনের কথা উচ্চারিত হয় বক্তাদের কণ্ঠে। এসবের স্বীকৃতি হিসেবে প্রবাসী মুক্তিযোদ্ধাদের পক্ষ থেকে সম্মাননা স্বরূপ সদর কমিটিকে একটি ক্রেস্টও তুলে দেয়া হয় এই অনুষ্ঠানের মন্চে।

রজত জয়ন্তী উপলক্ষে প্রকাশিত হয়েছে একটি সমৃদ্ধ স্মারক ম্যাগাজিন ‘ কপোত”। সংগঠনের প্রাক্তন সভাপতি মাহবুব রহমানের সম্পাদনায় সিলেট অঞ্চলের গুরুত্বপূর্ন লেখকরা এ স্মারকগ্রন্থে লিখেছেন। সাহিত্য মূল্যের দিকে এ স্মারক ম্যাগাজিনটি সময়ের গুরুত্বপূর্ন দলিল হয়ে থাকবে বলে কপোতের প্রকাশনা পর্বে বক্তারা উল্লেখ করেন।

দুইদিনব্যাপী নানা পর্বের আলোচনায় অংশ গ্রহণ করেছেন অ্যাটর্নি মঈন চৌধুরী, সংগঠনের সাবেক সভাপতি জেড চৌধুরী জুয়েল, ব্যারিস্টের সায়েদুল হক সুমন,কবি ফকির ইলিয়াস, আসিফ চৌধুরী, রওশন হক, ফারহানা ইলিয়াস তুলি, শারমিলি চৌধুরী, রোকেয়া দীপা প্রমুখ।

সাংস্কৃতিক পর্বে চমৎকার সব গান গেয়ে মাতিয়ে রাখেন শফি মণ্ডল, সুলতানা ইয়াসমিন লায়লা, কৃষ্ণা তিথি, মরিয়ম মারিয়া, শাহ মাহবুব, ত্রিনিয়া হাসান, সৈয়দা আনতারা হক প্রমুখ। সঙ্গীত পর্বে শিল্পীদের কাছে প্রাধান্য পেয়েছে সিলেটের আঞ্চলিক গান। এরমধ্যে ধামাইল,হাসন রাজা,আরকুম শাহ,শাহ আব্দুল করিম,কবি দেলওয়ারের গান। অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেছেন বাঙালি সংস্কৃতির গুরুত্বপূর্ণ উপাদান পাওয়া যায় সিলেট অঞ্চলের ফোক গানে। বাংলা সঙ্গীত ও সংস্কৃতিকে সমৃদ্ধ করা এসব গান শুধু সিলেট অঞ্চলেরই নয়, সব বাঙালির মনকে উতলা করে বলে তাঁরা উল্লেখ করেন।

অনুষ্ঠানে অংশগ্রহন করে অনেকেই বলেছেন মহামারির বিপন্ন সময়ে সিলেট সদর অ্যাসোসিয়েশন যেমন সকলের পাশে থেকেছে,তেমনি কঠিন এক সময়ে মান সম্পন্ন অনুষ্টান উপহার দিয়ে নিজেদের অগ্রসর সংগঠক হিসেবে তাঁরা প্রমাণ করেছে। নিউইয়র্কের জনসমাজের কাছে বিষয়টি মাইলফলক হয়ে থাকবে বলে অনেকেই বলেছেন। প্রেস বিজ্ঞপ্তি

সোস্যাল শেয়ার :

Related posts

মন্তব্য করুন

Share
Share