নিউইয়র্ক     বৃহস্পতিবার, ২২শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ  | ৯ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

অভিবাসী সংকট

‘যুক্তরাষ্ট্রের সীমান্ত অঞ্চলে সমর্থন কমছে বাইডেনের’

পরিচয় ডেস্ক

প্রকাশ: ০৩ অক্টোবর ২০২৩ | ০১:২০ পূর্বাহ্ণ | আপডেট: ০৩ অক্টোবর ২০২৩ | ০১:২০ পূর্বাহ্ণ

ফলো করুন-
‘যুক্তরাষ্ট্রের সীমান্ত অঞ্চলে সমর্থন কমছে বাইডেনের’

অভিবাসী সংকটের কারণে সীমান্ত অঞ্চলগুলোতে প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের সমর্থন কমে যাচ্ছে বলে দাবি করেছেন সাবেক রিপাবলিকান রিপ্রেজেন্টেটিভ মায়রা ফ্লোরস। ফক্স নিউজকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি অভিযোগ করেন, বাইডেন প্রশাসন নিজের নাগরিকদের তুলনায় অভিবাসীদের বেশি সুবিধা দিচ্ছে। আর এতে এই সংকট আরও বেশি গভীর হচ্ছে।

ফ্লোরেস টেক্সাসের ৩৪ তম কংগ্রেসনাল ডিস্ট্রিক্টে নির্বাচন করতে যাচ্ছেন। ডেমোক্র্যাট দলের ভিসেন্তে গঞ্জালেজের কাছ থেকে তার সাবেক আসনটি পুনরুদ্ধার করতে চান ফ্লোরেস। ফক্স নিউজে তিনি বলেন, হাজার হাজার অভিবাসী যুক্তরাষ্ট্রের সীমান্ত শহরগুলিতে ঢালাওভাবে প্রবেশ করছে। এতে এসব অঞ্চলে অপরাধ বাড়ছে এবং অর্থনৈতিক সংকট ঘনীভূত হচ্ছে। তিনি বলেন, এসব অঞ্চলে বসবাসরত মার্কিন নাগরিকদের জীবন আরও কঠিন হচ্ছে, কারণ স্থানীয়দের জন্য বরাদ্দকৃত অর্থ অভিবাসীদের জন্য ব্যয় করা হচ্ছে। এসব এলাকা যুক্তরাষ্ট্রের সবথেকে দরিদ্র অথচ অভিবাসী সংকটের পেছনে তাদের অর্থ খরচ করা হচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, অভিবাসী সমস্যা নিউইয়র্ককে ভীষণভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে। যুক্তরাষ্ট্রের বৃহত্তম শহর নিউইয়র্কের মেয়র বলেন, অভিবাসী সংকটের কারণে নিউইয়র্ককে ধ্বংস হতে চলেছে। আর সেখানে দক্ষিণ টেক্সাসের ছোট ছোট শহরগুলি এই চাপ কীভাবে সহ্য করবে! সীমান্তের ওপাড়ে থাকা অপরাধীরা সীমান্ত পেরিয়ে আসা মানুষের বন্যায় যোগ দিয়েছে।

এ কারণে যুক্তরাষ্ট্রের অভ্যন্তরেও অপরাধ বাড়ছে।
তিনি বলেন, দুই সপ্তাহ আগে ব্রাউন্সভিলে ৫০ জন নারীর একটি দলের সাথে আমি ছিলাম। তারা সকলেই ২০২০ সালে বাইডেনকে ভোট দিয়েছিলেন। কিন্তু তাদের একজনও ২০২৪ সালে বাইডেনকে ভোট দেবেন না বলে জানিয়েছেন। তারা বলেছেন, মূলত অর্থনীতির অবস্থা খারাপ হওয়ার কারণেই তারা রিপাবলিকান পার্টিকে ভোট দেবেন।

শেয়ার করুন