নিউইয়র্ক     বৃহস্পতিবার, ১৩ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ  | ৩০শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলার আসামি নূর চৌধুরীকে ফেরত চায় বাংলাদেশ, ফেরত দেয়া সম্ভব না-কানাডীয় হাইকমিশনারের জবাব

পরিচয় ডেস্ক

প্রকাশ: ০৫ নভেম্বর ২০২২ | ০১:১১ অপরাহ্ণ | আপডেট: ০৫ নভেম্বর ২০২২ | ০১:১১ অপরাহ্ণ

ফলো করুন-
বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলার আসামি নূর চৌধুরীকে ফেরত চায় বাংলাদেশ, ফেরত দেয়া সম্ভব না-কানাডীয় হাইকমিশনারের জবাব

বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলার আসামি নূর চৌধুরীকে ফেরত চায় বাংলাদেশ, ফেরত দেয়া সম্ভব না-কানাডীয়।

ঢাকা : কানাডায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হত্যা মামলার মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি নূর চৌধুরীকে ফেরত পাঠানোর জন্য বিকল্প পথ খুঁজতে দেশটির প্রতি অনুরোধ জানিয়েছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। গত ১লা নভেম্বর মঙ্গলবার দুপুরে সচিবালয়ে কানাডার হাইকমিশনার লিলি নিকোলসের সঙ্গে এক সৌজন্য সাক্ষাতে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক এ অনুরোধ জানান। তবে হাইকমিশনার জানান, কানাডার আইনে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিকে ফেরত দেয়া সম্ভব নয়।

বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলার আসামি নূর চৌধুরীকে ফেরত চায় বাংলাদেশ, ফেরত দেয়া সম্ভব না-কানাডীয়।

আইনমন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলার আসামি নূর চৌধুরীকে ফেরত পাঠানোর বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। কানাডা আইনে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিকে ফেরত দেয়া সম্ভব না বলে হাইকমিশনার জানিয়েছেন। আমি তাদের অনুরোধ করেছি, বিকল্প পন্থা বের করা যায় কিনা। তাকে বলেছি একজন খুনিকে আশ্রয় দেয়া মানবাধিকার লঙ্ঘন। আমি হাইকমিশনারকে অনুরোধ করেছি, যেসব আইন ও বিধি-বিধান আছে তা যদি পর্যবেক্ষণ করে দেখি তাহলে কানাডা যাতে তাকে ফিরিয়ে দিতে পারে সে পন্থা খুঁজতে পারে। হাইকমিশনার বলেছেন, কানাডা সরকারকে বিষয়টি তিনি জানাবেন।

আইনমন্ত্রী বলেন, হাইকমিশনার জানতে চেয়েছেন, জাতীয় নির্বাচনের সময় বাংলাদেশ নির্বাচনী পর্যবেক্ষক ‘অ্যালাউ’ করবে কিনা? এ প্রশ্নের উত্তরে তিনি (আইনমন্ত্রী) সুস্পষ্টভাবে জানান, এটা নির্বাচন কমিশনের ব্যাপার। তারা এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিবেন। নির্বাচন কমিশনের দায়িত্ব সুষ্ঠু নির্বাচন করা। সেখানে সরকার প্রয়োজনীয় সহযোগিতা করবে। বাংলাদেশ সরকার বদ্ধপরিকর যে, বাংলাদেশে স্বচ্ছ ও নিরপেক্ষ নির্বাচন হোক।

ডাটা সুরক্ষা আইন নিয়ে আনিসুল হক হাইকমিশনারকে জনান এ আইনের খসড়া প্রণয়নের ব্যাপারে অংশীজনদের সঙ্গে একবার সভা হয়েছে। আরও ২-৩ বার সভা হবে। ডাটা নিয়ন্ত্রণ করার জন্য এ আইন করা হবে না, ডাটা সুরক্ষার জন্য করা হবে। তিনি বলেন, এ বছর বাংলাদেশ-কানাডা সম্পর্কের ৫০ বছর পূর্ণ হয়েছে। উভয় দেশ অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে এ সম্পর্ক দেখে। ফলে উভয় দেশের মধ্যে অত্যন্ত বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক বিরাজ করছে। এই সম্পর্ক আরও দৃঢ় ও গভীর হোক, বাংলাদেশ সেটাই চায়।

শেয়ার করুন