নিউইয়র্ক     সোমবার, ২০শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ  | ৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

প্রত্যাশিত সময়ের আগেই পাকিস্তান-আইএমএফ বৈঠক!

পরিচয় ডেস্ক

প্রকাশ: ০১ আগস্ট ২০২২ | ১১:২৫ পূর্বাহ্ণ | আপডেট: ০১ আগস্ট ২০২২ | ১১:২৫ পূর্বাহ্ণ

ফলো করুন-
প্রত্যাশিত সময়ের আগেই পাকিস্তান-আইএমএফ বৈঠক!

আর্থিক সংকট থেকে উত্তরণে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল আইএমএফ-এর সহায়তা খুব বেশি প্রয়োজন পাকিস্তানের জন্য। এ নিয়ে যে সময়ে আইএমএফের নির্বাহী পরিষদের সঙ্গে পাকিস্তানের বৈঠক হওয়ার কথা, তা প্রত্যাশিত সময়ের আগেই শুরু হতে পারে। অনলাইন ডন জানিয়েছে, আগামী ২০শে আগস্টের আগেই এই বৈঠক শুরু হতে পারে। সেই বৈঠক থেকে পাকিস্তানকে দেয়া প্রতিশ্রুতির পরবর্তী কিস্তির সহায়তা ছাড়ের অনুমোদন আশা করা হচ্ছে। সপ্তম এবং অষ্টম কিস্তিতে পাকিস্তানকে ৬০০ কোটি ডলারের ঋণ দেয়ার জন্য নির্বাহী পরিষদের অনুমোদন প্রয়োজন। এসব অর্থের জন্য ২০১৯ সালেই আইএমএফের সঙ্গে চুক্তি স্বাক্ষর করেছে পাকিস্তান। ফলে স্বাভাবিকভাবেই এই অর্থ পাকিস্তানের হাতে তুলে দেয়ার কথা। কিন্তু পাকিস্তানের অর্থনৈতিক নীতি নিয়ে আপত্তি উত্থাপন করে আইএমএফ। তারপর এ বছরের শুরুর দিকে ১৭০ কোটি ডলারের কিস্তি দেয়া স্থগিত করে।
এর আগেই স্টাফ পর্যায়ের চুক্তিতে পৌঁছে পাকিস্তান ও আইএমএফ। এই চুক্তির ফলে জুলাইয়ে পাকিস্তানের জন্য এক্সটেন্ডেড ফান্ড ফ্যাসিলিটি (ইএফএফ) কর্মসূটিতে ৬০০ কোটি ডলার ঋণ পুনরুজ্জীবিত করা হয়।

কিন্তু এই ঋণ ছাড় দেয়ার ক্ষেত্রে নির্বাহী পরিষদের অনুমোদন প্রয়োজন হয়। এই পরিষদের বৈঠকের বিষয়ে কূটনৈতিক এবং আইএমএফের সূত্র উদ্ধৃত করে ডন বলেছে, নির্বাহী পরিষদের বৈঠক এই সপ্তাহের শেষের দিকে শুরু হতে পারে।
এর আগে রিপোর্টে বলা হয়েছিল, এই বৈঠক হতে পারে ২০ থেকে ২৪ শে আগস্টের মধ্যে। কিন্তু এখন সে সময় এগিয়ে আনা হয়েছে। ফলে ২০ শে আগস্টের আগেই বসতে পারে বৈঠক। একটি সূত্র বলেছেন, যদি এ বিষয়ে সুপারিশ বোর্ডের কাছে ৬ই আগস্টের মধ্যে পাঠানো হয়, তাহলে বৈঠক হতে পারে ২০ শে আগস্টের আগে। পাকিস্তানকে সহায়তা করতে আগ্রহী আইএমএফ। এক্ষেত্রে তাদের বিলম্ব করার কোনো ইচ্ছা নেই।
এর প্রেক্ষিতে যুক্তরাষ্ট্রের ডেপুটি পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়েন্ডি শেরম্যানের সঙ্গে কথা বলেছেন পাকিস্তানি সেনাপ্রধান জেনারেল কমর জাভেদ বাজওয়া। অর্থ ছাড়ের প্রক্রিয়াতে যুক্তরাষ্ট্রের সহায়তার অনুরোধ করেন তিনি

শেয়ার করুন