নিউইয়র্ক     শনিবার, ২৪শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ  | ১১ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ধর্মযাজকরাও পর্নোগ্রাফি দেখে, অভিযোগ পোপ ফ্রান্সিসের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশ: ২৭ অক্টোবর ২০২২ | ০৫:২৪ পূর্বাহ্ণ | আপডেট: ২৭ অক্টোবর ২০২২ | ০৫:২৪ পূর্বাহ্ণ

ফলো করুন-
ধর্মযাজকরাও পর্নোগ্রাফি দেখে, অভিযোগ পোপ ফ্রান্সিসের

ধর্মযাজকরা পর্নোগ্রাফি দেখেন বলে অভিযোগ করেছেন পোপ ফ্রান্সিস। একইসঙ্গে অনলাইনে পর্নোগ্রাফি দেখার ঝুঁকি সম্পর্কে ধর্মযাজকদের সতর্কও করেছেন তিনি। পোপ বলেছেন, এটি (পর্নোগ্রাফি) ‘যাজকদের হৃদয়কে দুর্বল করে’। বৃহস্পতিবার (২৭ অক্টোবর) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ৮৬ বছর বয়সী পোপ ভ্যাটিকানে এক অধিবেশনে কীভাবে ডিজিটাল এবং সোশ্যাল মিডিয়ার সর্বোত্তম ব্যবহার করা উচিত সে সম্পর্কে একটি প্রশ্নের জবাব দেওয়ার সময় এই মন্তব্য করেন। পোপ ফ্রান্সিস বলেন, পর্নোগ্রাফি ‘একটি পাপ যা অনেক লোকের মধ্যে আছে… এমনকি ধর্মযাজক এবং নানদেরও’। ধর্মযাজক ও সেমিনারিয়ানদের তিনি বলেন, ‘সেখান থেকে শয়তান প্রবেশ করে।’

কীভাবে সোশ্যাল মিডিয়া এবং ডিজিটাল দুনিয়ায় বিচরণ করা যায় সে সম্পর্কে পোপ বলেন, ডিজিটাল এবং সোশ্যাল মিডিয়ার অপশনগুলো ব্যবহার করা উচিত তবে এতে বেশি সময় নষ্ট করা উচিত নয়। পোপ ফ্রান্সিসের ভাষায়, ‘পরিশুদ্ধ হৃদয় কখনও এই পর্নোগ্রাফি বা অশ্লীল তথ্য পেতে পারে না।’

ধর্মযাজক ও নানদের ওই গ্রুপটিকে পোপ পরামর্শ দেন, ‘আপনার ফোন থেকে এটি (পর্নোগ্রাফি) মুছে ফেলুন, যাতে আপনার হাতে সেগুলোর দেখার মতো প্রলোভন না থাকে।’ চার্চে যে শিক্ষা দেওয়া হয় তাতে পর্নোগ্রাফিকে শুদ্ধতার বিরুদ্ধে অপরাধ হিসাবে তুলে ধরা হয় বলে জানিয়েছে বিবিসি।

শেয়ার করুন