নিউইয়র্ক     রবিবার, ১৪ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ  | ৩০শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চ্যাম্পিয়ন হয়ে কত টাকা পেলেন মেসিরা

স্পোর্টস ডেস্ক

প্রকাশ: ১৯ ডিসেম্বর ২০২২ | ০১:১৪ অপরাহ্ণ | আপডেট: ১৯ ডিসেম্বর ২০২২ | ০১:১৪ অপরাহ্ণ

ফলো করুন-
চ্যাম্পিয়ন হয়ে কত টাকা পেলেন মেসিরা

শ্বাসরূদ্ধকর ম্যাচে টাইব্রেকার রোমাঞ্চে জিতে ৩৬ বছরের অপেক্ষার অবসান ঘটালো আর্জেন্টিনা। মেসির হাতে উঠলো আরাধ্যের শিরোপা। ফুটবল জাদুকরের নামটি বসলো আর্জেন্টাইন আরেক ফুটবল ঈশ্বর দিয়েগো ম্যারাডোনার পাশে। মেসি ব্রাজিলে যা পারেননি, রাশিয়াতে যা পারেননি, সেটাই করে দেখালেন কাতার বিশ্বকাপে। ফাইনালে ফ্রান্সকে টাইব্রেকারে ৪-২ গোলে হারিয়ে আর্জেন্টিনা চ্যাম্পিয়ন হতেই পর্দা নামে বিশ্বকাপের। অনেক অনেক পুরস্কারের সঙ্গে চ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনা পাচ্ছে আর্থিক পুরস্কারও। শুধু আর্জেন্টিনাই নয়, বিশ্বকাপে অংশ নেওয়া ৩২ দলের জন্যই থাকছে প্রাইজমানি।

আর সেই প্রাইজমানি আগের বিশ্বকাপগুলোর তুলনায় একটু বেশিই। কাতার বিশ্বকাপে চ্যাম্পিয়ন দল পাবে রেকর্ড ৪২ মিলিয়ন ডলার, যা বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ৪৩৩ কোটি ৬০ লাখ টাকা। রানার্সআপ ফ্রান্স পাচ্ছে ৩০ মিলিয়ন ডলার, যা বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ৩০০ কোটি টাকা। ২০১৮ সালে রাশিয়ায় অনুষ্ঠিত সর্বশেষ বিশ্বকাপের চেয়ে ৬০ লাখ ডলার বাড়ানো হয়েছে এবার।

গত বিশ্বকাপে রানার্সআপ হওয়ার পর কাতার বিশ্বকাপে তৃতীয় হয়ে বিশ্বকাপ শেষ করেছে ক্রোয়েশিয়া। সব মিলিয়ে ৬ বার বিশ্বকাপ খেলে তিনবার সেমিফাইনালে উঠেছে তারা, সেই সঙ্গে এটি ক্রোয়েশিয়ার দ্বিতীয়বারের মতো তৃতীয় হওয়া। তৃতীয় হওয়া ক্রোয়েটরা প্রাইজমানি হিসেবে পাবে ২৭ মিলিয়ন ডলার। অন্যদিকে ক্রোয়েশিয়ার সঙ্গে হেরে চতুর্থ হয় মরক্কো। বাঘা বাঘা দলকে হারিয়ে ইতিহাস গড়ে বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে ওঠা মরক্কো প্রাইজমানি হিসেবে পাচ্ছে ২৫ মিলিয়ন ডলার।

শুধু এই চার দলের জন্যই নয়, বিশ্বকাপে খেলা প্রতিটি দলের জন্যই প্রাইজমানি রাখা হয়েছে। ৫ থেকে ৮ম হওয়া প্রতিটি দল পাবে ১৭ মিলিয়ন ডলার করে। পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ব্রাজিল কোয়ার্টার ফাইনাল থেকে বাদ পড়ে গেছে। এই কারণে তারা প্রাইজমানি হিসেবে পাচ্ছেন ১৭ মিলিয়ন ডলার। ব্রাজিল ছাড়াও নেদারল্যান্ডস, পর্তুগাল ও ইংল্যান্ড প্রত্যেকে কোয়ার্টার ফাইনাল খেলেছে। তারাও ১৭ মিলিয়ন ডলার করে পাবে।

নবম থেকে ১৬তম হওয়া প্রতিটি দল ১৩ মিলিয়ন ডলার পাবে। শেষ ষোলতে খেলা দলগুলো হচ্ছে- মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, সেনেগাল, অস্ট্রেলিয়া, পোল্যান্ড, স্পেন, জাপান, সুইজারল্যান্ড ও দক্ষিণ কোরিয়া। তারা প্রত্যেকে ১৩ মিলিয়ন ডলার করে পাবে। ১৭তম থেকে ৩২তম প্রতিটি দল ৯ মিলিয়ন ডলার করে প্রাইজমানি পাবে। স্বাগতিক কাতার ছাড়াও এই তালিকায় আছে ইকুয়েডর, ওয়েলস, ইরান, মেক্সিকো, সৌদি আরব, ডেনমার্ক, তিউনিসিয়া, কানাডা, বেলজিয়াম, জার্মানি, কোস্টারিকা, সার্বিয়া, ক্যামেরুন, ঘানা ও উরুগুয়ে। সূত্র : বাংলা ট্রিবিউন

কাতার বিশ্বকাপের প্রাইজমানির পরিমাণ

চ্যাম্পিয়ন: ৪২ মিলিয়ন ডলার
রানার্সআপ: ৩০ মিলিয়ন ডলার
তৃতীয় স্থান অর্জনকারী দল: ২৭ মিলিয়ন ডলার
চতুর্থ স্থান অর্জনকারী দল: ২৫ মিলিয়ন ডলার
কোয়ার্টার ফাইনাল খেলা দল: ১৭ মিলিয়ন ডলার
নকআউট পর্বে যাওয়া দল: ১৩ মিলিয়ন ডলার
গ্রুপ পর্বে অংশগ্রহণকারী দল: ৯ মিলিয়ন ডলার

শেয়ার করুন