নিউইয়র্ক     বৃহস্পতিবার, ১৩ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ  | ৩০শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

গ্রিসে অপরাধে জড়াচ্ছেন বাংলাদেশিরা

পরিচয় ডেস্ক

প্রকাশ: ২৯ জুলাই ২০২৩ | ০২:২১ পূর্বাহ্ণ | আপডেট: ২৯ জুলাই ২০২৩ | ০২:২১ পূর্বাহ্ণ

ফলো করুন-
গ্রিসে অপরাধে জড়াচ্ছেন বাংলাদেশিরা

জীবনের ঝুঁকি নিয়ে উজ্জ্বল ভবিষ্যতের আশায় প্রবাসে পাড়ি দিচ্ছেন বাংলাদেশিরা। কিন্তু বিদেশে গিয়ে অনেক প্রবাসী বাংলাদেশিরা জড়িয়ে পড়ছেন নানান অপরাধে। বিদেশের মাটিতে দিন-রাত পরিশ্রম করে যখন প্রবাসীরা বিভিন্ন দেশে সুনাম কুড়াচ্ছেন, অন্যদিকে কিছু বাংলাদেশি নাগরিকরা অপরাধে জড়িয়ে দেশের নাম ক্ষুণ করছেন।

দক্ষিণ পূর্ব ইউরোপের দেশ গ্রিস। যেখানে তুর্কি,আলবেনিয়া ও রোমানিয়ার সীমান্ত পাড়ি দিয়ে খুব সহজেই ইউরোপে প্রবেশ করা যায়। গ্রিসকে ইউরোপের করিডোর বলা হয়। কারণ গ্রিস হয়েই অনেক বাংলাদেশিসহ এশিয়া ও মধ্য-প্রাচ্যের অভিবাসন প্রত্যাশীরা ইউরোপের উন্নত দেশগুলোতে প্রবেশ করে থাকেন।

গ্রিসের সরকারি তথ্য অনুযায়ী, ৩৫ হাজার বাংলাদেশি গ্রিসে বসবাস করছেন। কিন্তু বেসরকারি তথ্যে শুধু মানোলাদা গ্রামেই বাস করছেন ১৫ হাজারেরও বেশি বাংলাদেশি। যাদের অধিকাংশই অবৈধ। গ্রিসে বসবাসের আইনি কোনো স্বীকৃতি নেই তাদের। কিন্তু তারাই গ্রিসের কৃষিখাতকে ধরে রেখেছেন।

গ্রিসে বৈধতার খুব একটা সুযোগ-সুবিধা না থাকলেও, কাজের অভাব নেই। বিনা কাগজেও কাজ করা যায় দেশটিতে। বিশেষ করে বাংলাদেশিদের জন্য একটা বিশেষ সুযোগ তৈরি হয়েছে কৃষি, গার্মেন্টস ও রেস্তোরায়। কিন্তু এই সুযোগ হয়তো খুব বেশিদিন ধরে রাখতে পারবে না বাংলাদেশিরা। কারণ দেশটিতে অপরাধে জড়িয়ে পড়ছে প্রবাসী বাংলাদেশিরা।

মানোলাদাসহ গ্রিসের বিভিন্ন গ্রামে কৃষি মালিকদের একটা আস্থার জায়গা করে নিয়েছিল বাংলাদেশিরা। যার জন্য পুলিশ তেমন একটা হয়রানি করতো না। কিন্তু এই গ্রাম থেকেই আস্তে আস্তে গাঁজার ব্যবহার থেকে শুরু করে মানুষ খুন শুরু হয়েছে। তা এখন ধীরে ধীরে শহরমুখী হচ্ছে। মানুষ গুম, অপহরণ, নেশা দ্রব্য বিক্রি, আদম পাচার ও খুনের মতো অপরাধে জড়িয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশিরা।

এক মাসের ব্যবধানে কাগজ ছাড়া ফৌজদারি মামলায় গ্রেপ্তার হয়েছেন পঞ্চাশ জনেরও বেশি প্রবাসী বাংলাদেশি। যারা বর্তমানে জেল হাজতে আছেন।

গ্রিসের বাংলা-শিক্ষা কেন্দ্রের সভাপতি দাদন মৃধা বলেন ‘আমাদের সন্তানদের নিয়ে শঙ্কায় আছি। আমার ছেলে বড় হচ্ছে। যতক্ষণ পর্যন্ত ছেলে বাসায় ফিরে না আসে বাংলাদেশের মতো এখানেও আমাদের ভয় কাজ করে।

দেশটিতে বাংলাদেশিরা নেশা দ্রব্য বিক্রি, পতিতাবৃত্তি,পরকীয়ায় জড়িয়ে খুন হওয়াসহ বিভিন্ন অপরাধে জড়িয়ে পড়ছে। যার কারণে এখন গ্রিকদের আর আস্থা নেই বাংলাদেশিদের ওপরে। তারা আগের মতো আর বাংলাদেশিদের বিশ্বাস করে না।

সর্বশেষ কিউবান ট্রান্সজেন্ডার নারী আনা ইভানকোভাকে (৪৬) হত্যার অভিযোগে এক প্রবাসী বাংলাদেশিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তবে তদন্তের স্বার্থে গ্রেপ্তার ওই বাংলাদেশির পরিচয় প্রকাশ করিনি পুলিশ ।

শেয়ার করুন