নিউইয়র্ক     বৃহস্পতিবার, ১৩ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ  | ৩০শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

খোলা আকাশের নিচে সরকারি অনুষ্ঠান, হিট স্ট্রোকে ১১ জনের মৃত্যু

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশ: ১৭ এপ্রিল ২০২৩ | ১২:৫৬ পূর্বাহ্ণ | আপডেট: ১৭ এপ্রিল ২০২৩ | ১২:৫৬ পূর্বাহ্ণ

ফলো করুন-
খোলা আকাশের নিচে সরকারি অনুষ্ঠান, হিট স্ট্রোকে ১১ জনের মৃত্যু

ভারতে খোলা আকাশের নিচে সরকারি পুরস্কার প্রদানের অনুষ্ঠানে হিট স্ট্রোকে ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া একই অনুষ্ঠানে তাপজনিত স্বাস্থ্য সমস্যায় অসুস্থও হয়ে পড়েছেন আরও অনেকে। অসুস্থ এসব মানুষের অনেককে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ভারতের পশ্চিমাঞ্চলীয় মহারাষ্ট্র রাজ্যে এই ঘটনা ঘটেছে বলে সোমবার (১৭ এপ্রিল) এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, রোববার রাজ্যটির মহারাষ্ট্র ভূষণ পুরস্কার অনুষ্ঠানে তীব্র রোদের মধ্যে খোলা আকাশের নিচে বসে থাকা অবস্থায় হিট স্ট্রোকের কারণে ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে মহারাষ্ট্রের উপমুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফাডনবিস জানিয়েছেন। এছাড়া তাপজনিত স্বাস্থ্য সমস্যা নিয়ে আরও প্রায় ৫০ জনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী একনাথ শিন্ডে ওই পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন এবং খবর পেয়ে অসুস্থদের দেখতে তিনি হাসপাতালে যান। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম বলছে, জাঁকজমকভাবে সরকারি পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়েছিল। কিন্তু আসল জিনিসেরই ব্যবস্থা নেই! দিনের বেলায় প্রচণ্ড গরমের মধ্যে আয়োজন করা হয় পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের, অথচ আগত হাজার হাজার মানুষের মাথার ওপরে কোনও ছাউনির ব্যবস্থা ছিল না।

রোববার মহারাষ্ট্রের নভি মুম্বাইয়ের খারঘরে আয়োজন করা হয়েছিল মহারাষ্ট্র ভূষণ পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের। সেখানে প্রবল গরম ও তাপপ্রবাহে কমপক্ষে ১১ জনের মৃত্যু হয়। অসুস্থ হয়ে পড়েন ১২০ জনেরও বেশি। তাদের মধ্যে অনেককে হাসপাতালে নেওয়া হয়।এই ঘটনার পর প্রশাসনের দিকে অভিযোগের আঙুল তুলেছেন সাধারণ মানুষ। ১১ জনের মৃত্যুর জন্য সরকারের বিরুদ্ধেই গাফিলতির অভিযোগ উঠেছে।

রোববার মহারাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্র দপ্তরের পক্ষ থেকে দেওয়া এক বিবৃতিতে জানানো হয়, নভি মুম্বাইয়ের খারঘরে আয়োজিত মহারাষ্ট্র ভূষণ পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে যোগ দিতে এসে হিট স্ট্রোকে মৃত্যু হয়েছে ১১ জনের। অসুস্থ হয়ে পড়েছেন কমপক্ষে ১২০ জন। অসুস্থদের অনেককে তাৎক্ষণিকভাবে খারঘরের টাটা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

সংবাদমাধ্যম বলছে, মহারাষ্ট্রের এক সমাজকর্মীকে পুরস্কৃত করার জন্যই এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল। ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ এই পুরস্কার তুলে দেন। অনুষ্ঠানে মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী একনাথ শিন্ডে ও উপমুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফাডনবিসও উপস্থিত ছিলেন। মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী একনাথ শিন্ডে খবর পেয়ে সঙ্গে সঙ্গে টাটা হাসপাতালে যান। অনুষ্ঠানে যোগ দিতে এসে হিট স্ট্রোকে যাদের মৃত্যু হয়েছে, তাদের পরিবারকে ৫ লাখ রুপি করে ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে বলেও ঘোষণা দেন তিনি। অসুস্থদের যথাযথ চিকিৎসার ব্যবস্থা করারও নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

মূলত রোববার বেলা সাড়ে ১১টা থেকে এই পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান শুরু হয়ে দুপুর ১টা পর্যন্ত চলে। তবে সকাল থেকেই সাধারণ মানুষ ওই পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়েছিলেন। বেলা বাড়তেই চারিদিক ঘেরা ওই জায়গায় ভিড় আরও বেড়ে যায়। কিন্তু মাথার ওপরে কোনও ছাউনির ব্যবস্থা ছিল না।অনুষ্ঠানটি নভি মুম্বাইতে অনুষ্ঠিত হয় এবং এখানে দিনের তাপমাত্রা সর্বোচ্চ ৩৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস হিসেবে রেকর্ড করা হয়।

এসএ/এমএএস/এমউএ/টিএ/পরিচয়

শেয়ার করুন