Main Menu

উদ্বোধনী দিনে ওজনপার্ক, ব্রঙ্কস ইউনাইডেট ও জ্যাকসন হাইটস জয়ী ॥ সুহেলের হ্যাট্রিক

Parichoy-Football-League-Logo-637x450

নিউইয়র্ক: বাংলাদেশ স্পোর্টস কাউন্সিল অব আমেরিকা’র আয়োজনে প্রতিবছরের মতো এবারও মাঠে গড়ালো নিউইয়র্কের ফুটবল লীগ-২০১৬। চলতি বছরের ফুটবল লীগের টাইটেল স্পন্সর হচ্ছে নিউইয়র্ক থেকে প্রকাশিত সাপ্তাহিক পরিচয়। ফলে এবছরের লীগের নাম হচ্ছে ‘পরিচয় ফুটবল লীগ’। গত ২৪ এপ্রিল রোববার বিকেলে সিটির এলমহার্টস্থ নিউটাউন অ্যাথলেটিক মাঠে লীগের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি মাসুদ বিন মোমেন। উল্লেখ্য, বিগত তিন বছর ধরে অর্থাৎ ২০১৪ সাল থেকে লীগের পাশাপাশি ফুটবল টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত হচ্ছে। লীগের শীর্ষ চার দল নিয়ে টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত হবে। এবারের লীগে নিউইয়র্কসহ ট্রাইষ্টেটের ৯টি দল অংশ নিচ্ছে। দলগুলো হচ্ছে- মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব, ব্রঙ্কস ইউনাইটেড, ব্রঙ্কস ওয়ারিয়র, ওজনপার্ক এফসি, ব্রাদার্স এলায়েন্স, আইসাব, নিউজার্সী ইউনাইটেড, জ্যাকসন হাইটস স্পোটিং ক্লাব ও সোনার বাংলা।
‘পরিচয় ফুটবল লীগ ও টুর্নামেন্ট’-এর উদ্বোধনী দিনে তিনটি খেলা অনুষ্ঠিত হয়। খেলাগুলোতে ওজনপার্ক এফসি ৬-০ গোলে ব্রঙ্কস ওয়ারিয়র-কে, ব্রঙ্কস ইউনাইটেড ২-০ গোলে সোনার বাংলা-কে এবং জ্যাকসন হাইটস স্পোর্টিং ক্লাব নাটিকীয়ভাবে ৩-১ গোলে ব্রাদার্স এলায়েন্স-কে পরাজিত করে জয় পেয়ে শুভ সূচনা করেছে। এদিন ওজনপার্কের সুহেল হ্যাট্রিক করার গৌরব অর্জন করেন। খবর ইউএনএ’র।
উদ্বোধনী অনুষ্ঠান: দিনের প্রথম খেলা শেষে দ্বিতীয় খেলা শুরুর আগে অর্থাৎ বিকেল সাড়ে চারটার দিকে ‘পরিচয় ফুটবল লীগ’-এর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি মাসুদ বিন মোমেন রং বে রং-এর একগুচ্ছ বেলুন উড়ানোর পর ফুটবলে শট মেরে লীগের উদ্বোধন করেন। এর আগে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন বিশেষ অতিথি যথাক্রমে কনসাল জেনারেল শামীম আহসান ও বাংলাদেশ সোসাইটির সভাপতি আজমল হোসেন কুনু। স্পোর্টস কাউন্সিলের সভাপতি মহিউদ্দিন দেওয়ানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এই পর্বে অন্যান্যের মধ্যে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন স্পোর্টস কাউন্সিলের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও উপদেষ্টা মনজুর আহমেদ চৌধুরী, লীগ, উপদেষ্টা ও পৃষ্টপোষক সামসুল আবদীন, লীগ ও টুর্নামেন্টের গ্র্যান্ড স্পন্সর বিশিষ্ট রিয়েল এস্টেট ইনভেস্টর ও সমাজসেবী আনোয়ার হোসেন, এটর্নী মঈন চৌধুরী, বাংলাদেশ সোসাইটির সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহীম হাওলাদার এবং পৃষ্ঠপোষক ফাতেমা ব্রাদার্স-এর পক্ষে মোহাম্মদ ফখরুল ইসলাম দেলোয়ার। উদ্বোধনী পর্ব পরিচালনা করেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল বাসিত খান।
অনুষ্ঠানে ‘পরিচয় ফুটবল লীগ ও টুর্নামেন্ট’-এর টাইটেল স্পন্সর সাপ্তাহিক পরিচয়-এর সম্পাদক নাজমুল আহসান, কমিউনিটির বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গের মধ্যে সিলেট গণদাবী পরিষদের সভাপতি আজিমুর রহমান বুরহান, সোসাইটির কোষাধ্যক্ষ মোহাম্মদ আলী, স্পোর্টস কাউন্সিলের কর্মকর্তাদের মধ্যে প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক ও উপদেষ্টা আব্দুর রহিম বাদশা, সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও উপদেষ্টা আতাউর রহমান সেলিম, উপদেষ্টা ছদরুন নূর, জুনেদ এ খান সহ স্পোর্টস কাউন্সিলের কর্মকর্তাদের মধ্যে আব্দুল হাসিম হাসনু, আনোয়ার হোসাইন, জুয়েল আহমদ, ওয়াহিদ কাজী এলিন, তৈয়বুর রহমান টনি, জাকির হোসেন, মোহাম্মদ ফখরুল ইসলাম দেলোয়ার, সৈয়দ এনায়েত আলী, তোফায়েল ইসলাম, মফিজুল ইসলাম রুমি, জে সানি মোল্লা, আবু তাহির আসাদ, আব্দুল কাদির লিপু, জহির উদ্দিন জুয়েল, জাফর আহমেদ, ইয়াকুত রহমান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
অনুষ্ঠানে স্থায়ী প্রতিনিধি মাসুদ বিন মোমেন বলেন, ২৮ বছর আগে যুক্তরাষ্ট্র ছিলাম। তখন এমন খেলার আয়োজন ছিলো না। কিন্তু আজ লীগ হচ্ছে। তিনি বলেন, স্পোর্টস কাউন্সিল লীগ-টুর্নামেন্টের পাশাপাশি আমাদের স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষ্যে টুর্নামেন্টের আয়োজন করলে স্থায়ী মিশন সাধ্যমত সহযোগিতা করবে। তিনি বলেন, এসব আয়োজনের মধ্য দিয়ে আমরা বিশ্ববাসীর কাছে বাংলাদেশকে অসাম্প্রদায়িক, সর্বজনিন, আধুনিক মনের বাংলাদেশকে তুলে ধরতে পারবো, আমাদের সম্পর্কে অনেকের ভুল ধারণা দূর করতে পারবো।
কনসাল জেনারেল শামীম আহসান বলেন, খেলাধুলা এখন আর শুধু বিনোদন নয়, দেশ-বিদেশের আঞ্চলিক সহযোগিতা ও উন্নয়নে খেলাধুলাও কূটনৈতিক ভূমিকা রাখতে পারে। তিনি পরিচ্ছন্ন খেলা উপহার দিয়ে লীগ ও টুর্নামেন্টকে আকর্ষনীয় করে তোলার জন্য খেলোয়ারদের প্রতি আহ্বান জানান এবং স্পোর্টস কাউন্সিলের কর্মকান্ডের প্রশংসা করেন।
আনোয়ার হোসেন বলেন, দুই যুগ ধরে প্রবাসে ফুটবল লীগ হচ্ছে এটা আনন্দের কথা। সুন্দর কমিউনিটি গড়তে বিশেষ করে ফুটবল প্রেমী তরুণদের সঠিক পথ দেখাতে স্পোর্টস কাউন্সিল লীগ ও টুর্নামেন্টের আয়োজন করে ভূমিকা রাখবে।
এছাড়া অতিথিবৃন্দ ও স্পোর্টস কাউন্সিলের কর্মকর্তারা তাদের বক্তব্যে বলেন, প্রবাসে স্পোর্টস কাউন্সিল হচ্ছে সকল দল-মতের উর্ধ্বে সকল প্রবাসী বাংলাদেশীদের সর্বজনিন প্লাটফর্ম। এই লীগ ও টুর্নামেন্ট সকল প্রবাসীকে ঐক্যবদ্ধ করতে ভূমিকা রাখতে পারে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন। বক্তারা সকল দলের মধ্যে সৌহার্দ্য-সম্প্রীতি বজায় রেখে খেলোয়ারী মনোভাব নিয়ে খেলে দর্শকদের সুন্দর খেলা উপহার দেয়ার জন্য সকল দলের খেলোয়ারদের প্রতি আহ্বান জানান।
এদিকে ‘পরিচয় ফুটবল লীগ ও টুর্নামেন্ট’র আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের আগে অর্থাৎ প্রথম খেলা শুরুর সময় সংক্ষিপ্ত অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন টাইটেল স্পন্সর সাপ্তাহিক পরিচয়-এর সম্পাদক নাজমুল আহসান, লীগ ও টুর্নামেন্টের গ্র্যান্ড স্পন্সর বিশিষ্ট রিয়েল এস্টেট ইনভেস্টর ও সমাজসেবী আনোয়ার হোসেন, স্পোর্টস কাউন্সিলের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও উপদেষ্টা মনজুর আহমেদ চৌধুরী এবং সভাপতি মহিউদ্দিন দেওয়ান। সমগ্র অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন স্পোর্টস কাউন্সিলের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল বাসিত খান বুলবুল।
খেলার সংক্ষিপ্ত বিবরণ: দিনের প্রথম খেলায় ওজনপার্ক এফসি সহজেই ৬-০ গোলে ব্রঙ্কস ওয়ারিয়রকে পরাজিত করে। বিজয়ী দলের পক্ষে স্টাইকার সুহেল তিনটি গোল করে প্রথম হ্যাট্রিক করার গৌরব অর্জন করেন। এছাড়া আশরাফ ২টি ও রাসেল একটি গোল করেন। খেলার প্রথমার্ধে ২টি এবং দ্বিতীয়ার্ধে বাকী চারটি গোল হয়। প্রথমার্ধের খেলা শুরু হতে না হতেই দুই মিনিটের মাথায় ওজনপার্কের পক্ষে রাসেল দল ও এবারের লীগের প্রথম গোল করে (১-০)। এরপর ব্রঙ্কস ওয়ারিয়রের উপর প্রাধান্য বিস্তার করে খেলে ১৯ মিনিটের সময় বিজয়ী দলের কৃতি খেলোয়ার সুহেল দ্বিতীয় গোল (২-০) করে দলকে এগিয়ে নিয়ে যান। পরবর্তীর্তে দ্বিতীয়ার্ধের ২৯ মিনিটের সময় সুহেল আরো একটি গোল করেন (৩-০)। এরপর ৩১ মিনিটের সময় আশরাফ, ৩৬ মিনিটের সময় সুহেল (হ্যাট্রিক গোল) এবং ৪০ মিনিটের সময় আশরাফ আরো একটি গোল করেন। এছাড়াও আরো একাধিক গোলের সুযোগ নষ্ট করে ওজনপার্ক। লীগের দিনের প্রথম খেলায় জয় ছিনিয়ে নিতে তেমন বেগ পেতে হয়নি ওজনপার্ক-কে। ওজনপার্কের ঐক্যবদ্ধ সংঘবদ্ধ আক্রমণ সবার নজর কাড়ে।
দিনের দ্বিতীয় খেলায় ব্রঙ্কস ইউনাইটেড সহজেই ২-০ গোলে সোনার বাংলা-কে পরাজিত করেন জয় ছিনিয়ে নেয়। খেলার প্রথমার্ধে একটি এবং দ্বিতীয়ার্ধে একটি করে গোল হয়। বিজয়ী দলের পক্ষে স্ট্রাইকার কফিল প্রথমার্ধের ১৫ মিনিটের সময় প্রথম গোল করেন (১-০)। এরপর দ্বিতীয়ার্ধের ৪৪ মিনিটের সময় রাসেল আরো একটি করে গোল করে দলের জয় নিশ্চিত করেন। খেলায় আক্রমণ পাল্টা আক্রমণের পাশাপাশি উভয় দল পরিচ্ছন্ন খেলা উপহার দেয়।
দিনের তৃতীয় ও শেষ খেলায় জ্যাকসন হাইটস স্পোর্টিং ক্লাব নাটিকীয়ভাবে ৩-১ গোলে ব্রাদার্স এলায়েন্স-কে পরাজিত করে জয় ছিনিয়ে নেয়। বিজয়ী জ্যাকসন হাইটস-এর পক্ষে তোফায়েল ২টি এবং মিনহাজ একটি করে গোল করেন। অপরদিকে বিজিত ব্রাদার্স এলায়েন্স পক্ষে মোহাম্মদ উদ্দিন একমাত্র গোল করেন। খেলার প্রথমার্ধের ৮ মিনিটের সময় ব্রাদার্সের পক্ষে মোহাম্মদ উদ্দিন গোল করে দলকে এগিয়ে নিয়ে যান (১-০)। চলে আক্রমণ পাল্টা আক্রমন। জয় ধরে রাখার জন্য আপ্রাণ চেষ্টা চালায় ব্রাদার্স অপরদিকে জয় পরিশোধের জন্য মরিয়া হয়ে উঠে জ্যাকসন হাইটস। ফলে জমে উঠে খেলাটি। খেলার শেষ মূহুর্তে অর্থাৎ ৬ মিনিটের মধ্যে পরপর তিনটি গোল করে নাটনীয়ভাবে জয় ছিনিয়ে নেয় জ্যাকসন হাইটস। সংঘবদ্ধ আক্রমণ থেকে দ্বিতীয়ার্ধের ৩৪ মিনিটের সময় বিজয়ী দলের পক্ষে তোফায়েল গোল করে খেলায় সমতা ফিরিয়ে আনেন (১-১)। এরপর ৩৬ মিনিটের সময় তোফায়েল আরো একটি গোল করে দলকে এগিয়ে নিয়ে যান (২-১) এবং ২৮ মিনিটের সময় মিনহাজ গোল করে (৩-১) দলের বিজয় সুদৃঢ় করেন।
আগামী সপ্তাহের খেলা: আগামী ১ মে রোববার একই মাঠে ‘পরিচয় ফুটবল লীগ’-এর চারটি খেলা অনুষ্ঠিত হবে। বিকেল সোয়া তিনটায় প্রথম খেলায় জ্যাকসন হাইটস ও সোনার বাংলা, বিকেল সোয়া চারটার দ্বিতীয় খেলায় ব্রাদার্স এলায়েন্স ও ব্রঙ্কস ওয়ারিয়র, বিকেল সোয়া পাঁচটার তৃতীয় খেলায় মোহামেডান স্পোটিং ক্লাব ও আইসাব এবং সন্ধ্যা সোয়া ছয়টার চতুর্থ খেলায় জ্যাকসন হাইটস স্পোর্টিং ক্লাব এবং ওজনপার্ক এফসি একে-অপরের সাথে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*